শিরোনাম

আগামী জুলাই মাসে বাংলাদেশের পাঁচটি সিটি করপোরেশন নির্বাচন

আগামী জুলাই মাসে বাংলাদেশের পাঁচটি সিটি করপোরেশন নির্বাচন এবং ডিসেম্বর অথবা জানুয়ারিতে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা।

আজ (বৃহস্পতিবার) রাজশাহীর পবা উপজেলার দামকুড়া ইউনয়নে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কার্যক্রম পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান তিনি।

সিইসি নূরুল হুদা বলেন, ‘খুলনা, বরিশাল, সিলেট, রাজশাহী, গাজীপুর—এগুলা (নির্বাচন) করে ফেলব। আশা করি যে, জুলাইয়ের মধ্যে এগুলা করে ফেলব। জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে ২০১৯ সালের জানুয়ারির মাঝামাঝি সময়ের মধ্যে। অথবা ডিসেম্বরের শেষের দিকে।’

গতকাল বুধবার ৩৮টি সংসদীয় আসনের সীমানা পুনর্নির্ধারণ করে খসড়া প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এ সীমানা পরিবর্তন বিষয়ক কোনো মামলার কারণে জাতীয় নির্বাচন ঝুলে যাওয়ার শঙ্কা দেখছেন না সিইসি।

নূরুল হুদা বলেন, ‘এখন আর মামলা করতে পারবে না। সুপ্রিম কোর্ট থেকে একটা রুল আমাদের ফেবারে আছে যে, এই নির্বাচনের সময়, নির্বাচনের আইন, নির্বাচনের সীমানা নিয়ে আর মোকদ্দমা হবে না। সেটা তারা এন্টারটেইন করবে না।’ এ সময় তিনি আশা করেন, আগামী নির্বাচনে বিএনপিসহ সব দল অংশ নেবে। তবে এ বিষয়ে কমিশনের হস্তক্ষেপের সুযোগ নেই বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, গাজীপুর মেয়রের মেয়াদ শেষ হবে আগামী ৪ সেপ্টেম্বর। এছাড়াও, সিলেট মেয়রের মেয়াদ শেষ হবে ৮ সেপ্টেম্বর, খুলনা মেয়রের মেয়াদ শেষ হবে ২৫ সেপ্টেম্বর, রাজশাহীর ৫ অক্টোবর এবং বরিশালের ২৩ অক্টোবর।

রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল এবং সিলেট সিটি করপোরেশনে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০১৩ সালের ১৫ জুন। গাজীপুরে প্রথমবারের মতো সিটি করপোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০১৩ সালের ৬ জুলাই।


Print pagePDF pageEmail page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

See In Your Language