শিরোনাম

কক্সবাজার শহরের শীর্ষ সন্ত্রাসী ও যুবদল নেতা নাসির পুলিশের হাতে গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক [] সরকারী কাজে বাধাদান, বনভূমি দখল, ভূমিদস্যুতাসহ বহু মামলার আসামি কক্সবাজার শহরের কলাতলী এলাকার চিহ্নিত ইয়াবা ব্যবসায়ী সন্ত্রাসী নাসির উদ্দিন (৩২) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার (১৮ নভেম্বর) দুপুরে কক্সবাজার হাসপাতাল সড়ক থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। নাসির উদ্দিন কক্সবাজার শহরের কলাতলী আদর্শ গ্রামের মৃত জাকির আলমের ছেলে। তার বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী বাহিনী লালন ও চাঁদাবাজিসহ নানা অভিযোগ রয়েছে। চেক প্রতারণার মামলায় প্রায় চারমাস পর সম্প্রতি জেলা কারাগার থেকে বের হন নাসির উদ্দিন। গত ২৮ অক্টোবর দিবাগত রাতে অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী ও কলাতলীর মুরব্বি সিরাজুল হকসহ ৬ জনকে মারধরে আহত করার ঘটনায় সদর থানায় দায়েরকৃত মামলার প্রধান আসামি ছিলেন নাসির উদ্দিন। যার মামলা নং-জিআর ৮১৪/২০। এ মামলায় নাসির উদ্দিন ছাড়া আরো ৭ আসামি রয়েছে। মামলাটি করেন ভিকটিম সিরাজুল হকের ছেলে বেলায়েত হোসেন। কক্সবাজার সদর মডেল থানার এসআই ইন্দ্রজিৎ বর্মন মামলাটি তদন্ত করছেন। মামলার বাদি বেলায়েত হোসেন জানান, গত ২৮ অক্টোবর দিবাগত রাতে তার বসতভিটার জমি দখল করতে গিয়ে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাট চালানো হয়। নিজ সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে নারকীয় তান্ডব চালিয়ে বায়োবৃদ্ধ পিতাসহ অন্তত ৬ জনকে রক্তাক্ত জখম করে। বেপরোয়া হামলায় আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছে, কলাতলী, চন্দ্রিমা, আদর্শ গ্রামসহ আশপাশের এলাকার মানুষ নাসিরের হাতে জিম্মি। সে চিহ্নিত বখাটে, সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোকজন লালন করে। প্রভাবশালীদের ছায়ায় থাকার কারণে নাসির উদ্দিনের বিরুদ্ধে ভয়ে কেউ মুখ খুলতে সাহস পায় না। তার গ্রেফতারের সংবাদে পুলিশ প্রশাসনকে সাধুবাদ জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা। নাসির উদ্দিনের বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি মামলার সন্ধান পাওয়া গেছে। তার মধ্যে রয়েছে জিআর-৮৯৩/২০১২, সিআর মামলা নং-১০৪/১৭। অনুসন্ধানে জানা গেছে, ২০ লাখ টাকা উৎকোচ না দেওয়ায় ইয়াবা ব্যবসায়ী হাসানকে হত্যা করা হয়েছে দাবি করে পুলিশের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে বক্তব্য দিয়েছিল নাসির। অথচ তার বিরুদ্ধেও রয়েছে মাদক সম্পৃক্ততার অভিযোগ। নানা বিতর্ক জন্ম দেয়া এই ব্যক্তিকে দীর্ঘ দিন ধরে খোঁজতে ছিল পুলিশ। তার বিরুদ্ধে কথা বললে এলাকা ছাড়া করার ও হুমকি দেয় নাসির উদ্দিন। কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) বিপুল চন্দ্র দে জানান, জিআর-৮৯৩/২০১২ নং মামলার এজাহারভুক্ত প্রধান আসামি হিসেবে নাসির উদ্দিনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আর কোন মামলা আছে কিনা খতিয়ে দেখা হবে।


Print pagePDF pageEmail page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

See In Your Language