Templates by BIGtheme NET
শিরোনাম

চেইন অব কমান্ড ও সেকেন্ড ইন কমান্ডের নির্দেশের অপেক্ষায় বান্দরবান জেলা বিএনপি ঐক্যবদ্ধ

বান্দরবান ৩০০নং আসনে জয়ের জন্য বিএনপির মনোনিত প্রার্থীর সামনে বড় চ্যালেঞ্জ জেলা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সমর্থন নেওয়া। বান্দরবান ৩০০নং আসনে দলীয় নমিনেশন চেয়েছিল কেন্দ্রীয় বিএনপির নির্বাহী সদস্য স্যাচিং প্রু জেরী, বান্দরবান জেলা বিএনপির সভাপতি মাম্যাচিং ও সাধারণ সম্পাদক জাবেদ রেজা সহ আরো দশজন। কেন্দ্রীয় বিএনপি যাচাই বাচাই শেষে চুড়ান্ত ভাবে দলীয় নমিনেশন দেয় কেন্দ্রীয় বিএনপির নির্বাহী সদস্য স্যাচিং প্রু জেরীকে। অন্যদিকে বান্দরবান জেলা বিএনপির বর্তমান কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সাথে দীর্ঘ দিন ধরে মনোমালিন্য চলছে কেন্দ্রীয় বিএনপি নির্বাহী সদস্য স্যাচিং প্রু জেরীর সাথে। খবর নিয়ে জানা যায় বিগত প্রায় দুই বছর পূর্বে গঠিত বান্দরবান জেলা বিএনপির কমিটিকে স্যাচিং প্রু জেরী মেনে নেননি এবং ঐ কমিটির দলীয় কোন কর্মকাণ্ডের সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন না। এদিকে এই বিষয়ে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাবেদ রেজার কাছ থেকে জানতে চাইলে তিনি বলেন, কমিটি পাওয়ার পর থেকে আমি ও আমার সভাপতি মাম্যাচিং মিলে বান্দরবান জেলা বিএনপির ৩৩টি ইউনিয়ন, ৭টি উপজেলা ও ২টি পৌরসভা সহ বান্দরবান জেলা ছাত্রদল, জেলা যুব দল, জেলা সেচ্ছাসেবক দল, জেলা কৃষক দল ও জেলা শ্রমিক দলের প্রতিটি ইউনিট আমরা জেলা বিএনপির সাংগঠনিক জসীম উদ্দীন তুষার সহ অক্লান্ত পরিশ্রম করে ঢেলে সাজিয়েছি। তিনি অভিযোগ করেন এই সময় আমাদের মোরব্বি কেন্দ্রীয় বিএনপির নির্বাহী সদস্য স্যাচিং প্রু জেরীকে দলীয় কর্মকাণ্ড গুলো পরিচালনা করার সময় বার বার তাগিদ দেওয়ার পরও ওনার কোন সাড়া আমরা জেলা বিএনপি পাইনি।
উপজেলা ও পৌর বিএনপির একাদিক সিনিয়ার নেতৃবৃন্দের সাথে কথা বলে জানা যায়, বান্দরবান ৩০০নং আসনে ধানের শীষ প্রতীককে জয় যুক্ত করতে হলে দলীয় মনোনিত প্রার্থী স্যাচিং প্রু জেরীর সামনে বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে বান্দরবান জেলা বিএনপির সভাপতি মাম্যাচিং ও সাধারণ সম্পাদক জাবেদ রেজার সমর্থন পাওয়া।
জেলা যুদলের সভাপতি হারুন রশিদ এর কাছ কেন্দ্র থেকে ঘোষিত দলীয় নমিনেশন দেওয়া প্রার্থীর বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন আমরা জেলা বিএনপির সভাপতি সহযোগীতা ও নির্দেশ মতে ইতি পূর্বে আমি ও আমার সাধারণ সম্পাদক মিলে বান্দরবান জেলা যুবদল, উপজেলা যুবদল ও পৌর যুবদলেরে দলীর প্রত্যকটা কমিটি গুছিয়েছি। এখন সামনের জাতীয় নির্বাচন, জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক আমাদর যেভাবে দিক নির্দশনা দেবেন ঠিক ঐভাবে আমার জেলা যুবদলের নেতৃবৃন্দরা কাজ করতে প্রস্তুত রয়েছি।
অপর দিকে জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আশরাফুল আমিন ফরহাদ বলেছেন, আমরা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাবেদ রেজার নির্দেশক্রমে ইতিপূর্বে নির্বাচন পরিচালনা করার জন্য উপজেলা ও পৌরসভা প্রত্যকটি ভোট কেন্দ্র অনুসারে ছাত্রদলের কমিটি প্রস্তুত করেছি।এখন আমরা জেলা ছাত্রদল চেইন অব কমান্ড ও সেকেন্ড ইন কমান্ডের নির্দেশের অপেক্ষাই আছি।
এদিকে বান্দরবান সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি সরোয়ার জামান বলেন, আমরা ৭ উপজেলার তৃণমূল বিএনপির নেতৃবৃন্দ খুবই আশাবাদী ছিলাম যে, আমাদের সকলের মনোনীত প্রার্থী আমাদের নেত্রী মাম্যাচিংকে দল নমিনেশন দেবে। কিন্তু দল সাচিং প্রু জেরীকে নমিনেশন দিয়েছে। এখন আমরা আমাদের জেলা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নির্দেশের অপেক্ষাই আছি। ওনারা যেভাবে বলবেন ঐভাবে আমরা কাজ করতে প্রস্তুত রয়েছি।


Print pagePDF pageEmail page
Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*