শিরোনাম

জাতীয় পার্টির প্রতি সাধারণ মানুষের আস্থা আছে, তাই জাতীয় পার্টির প্রতি তাদের প্রত্যাশাও বেশি

জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেছেন, জাতীয় পার্টির প্রতি সাধারণ মানুষের আস্থা আছে, তাই জাতীয় পার্টির প্রতি তাদের প্রত্যাশাও বেশি। আর এ কারণেই জাতীয় পার্টি গণমানুষের জন্য দায়িত্বশীল রাজনীতি করছে।

সোমবার দুপুরে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের বনানী অফিসে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন তিনি।

জিএম কাদের আরও বলেন, সব দলের অংশগ্রহণে নির্বাচন উৎসবমুখর হবে।

তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন সবার অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে নির্বাচনী তফসিল পুনর্নির্ধারণ করেছে, এটাকে জাতীয় পার্টি ইতিবাচকভাবেই দেখছে।

মহাজোটের সঙ্গে আসন বণ্টন প্রসঙ্গে জিএম কাদের বলেন, জাতীয় পার্টি ১০০ আসন প্রত্যাশা করছে। তবে, আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে চূড়ান্ত করা হবে সব কিছুই।

জাতীয় পার্টি এবং হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নেতৃত্বে দেশ পরিচালনা প্রসঙ্গে জিএম কাদের বলেন, সাধারণ মানুষ নিরাপত্তা আর সুশাসনের ৯ বছর এখনো মনে রেখেছে।

তিনি বলেন, তখন বেকারত্ব ছিল না, দুর্নীতি ছিল না, সন্ত্রাস ও নৈরাজ্য ছিল না। ছিল নিরাপত্তা এবং রাজনৈতিক সহনশীলতা। তাই দেশের মানুষ এবার লাঙলে ভোট দিতে অপেক্ষা করে আছে।

প্রার্থী বাছাই প্রসঙ্গে জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেন, যারা জনপ্রিয় এবং দেশ ও দশের মঙ্গলে অবদান রাখতে পারবে তাদেরই মনোনয়ন দেয়া হবে।

এ সময় প্রেসিডিয়াম সদস্য মাসুদ পারভেজ সোহেল রানা, চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা রেজাউল ইসলাম ভূইয়া, ভাইস চেয়ারম্যান আলমগীর শিকদার লোটন, নুরুল ইসলাম নুরু, সাংগঠনিক সম্পাদক ফখরুল আহসান শাহাজাদা, আবু সাঈদ স্বপন উপস্থিত ছিলেন।

দ্বিতীয় দিনের মত সোমবারও জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের বনানী অফিস থেকে একাদশ জাতীয় নির্বাচনে আগ্রহী প্রার্থীদের মাঝে মনোনয়নপত্র বিতরণ করা হয়েছে। সকাল ১০টা থেকে মনোনয়নপত্র বিতরণ শুরু হলেও, সকাল থেকেই বিভিন্ন আসনের সম্ভাব্য প্রার্থীরা সমর্থকদের নিয়ে মিছিলে-মিছিলে মুখর করে তোলে পুরো এলাকা। এ সময় তারা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এবং লাঙ্গল প্রতীকে ভোট চেয়ে স্লোগান দেয়।

সোমবার মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেছেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য- অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন, সাইদুর রহমান টেপা, শেখ মুহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী, মীর আবদুস সবুর আসুদ, আতিকুর রহমান আতিক, এটিইউ তাজ রহমান, ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি।

এছাড়া আবদুল মুনিম চৌধুরী বাবু এমপি, অ্যাডভোকেট মহম্মদ আলতাফ আলী এমপি, মেজর (অব.) রানা মোহাম্মদ সোহেল, মোস্তফা আল মাহমুদ, মো. মহিবুল্লাহ, হাসান মঞ্জুর, খোরশেদ আলম খুশু, এমরান হোসেন মিয়া, শম সালাহ উদ্দিন, আব্বাস আলী তালুকদার, ইলিয়াস উদ্দিন, মিল্টন মোল্যা, গোলাম মোস্তফা বাবু মণ্ডল, সোলায়মান সামিসহ কয়েকশ প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নিতে ইচ্ছুক প্রার্থী দলীয় মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেছেন।


Print pagePDF pageEmail page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

See In Your Language