শিরোনাম

তিন পার্বত্য জেলায় সেনাবহিনীর সহায়তা নেয়া হবে নির্বাচনের সময়-লামায় ইসি সচিব

শহীদুল ইসলাম: বান্দরবান জেলা প্রতিনিধি:

বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ ২৮ অক্টোবর রোববার বান্দরবানের লামায় স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন। স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ উপলক্ষে উপজেলা পরিষদ চত্বরে এই বিশাল অনুষ্ঠানের আয়োজন করে লামা উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা নির্বাচন অফিস।

ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, ইভিএম একটি আধুনিক ভোটিং প্রযুক্তি। এটি ব্যবহার করে ডিজিটাল ব্যবস্থাপনায় মানুষ দ্রুত ভোট দিতে পারবে। এতে করে ভোটের কারচুপি ও কেন্দ্র দখলের মত সমস্যা গুলো বন্ধ হয়ে যাবে। যদি আইন সংশোধন হয় তাহলে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শহর এলাকায় স্বল্প পরিসরে আমরা ইবিএম পদ্ধতির ব্যবহার করব। পরবর্তীতে স্থানীয় সরকার নির্বাচনে বিশেষ করে ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভা, উপজেলা পরিষদ ও সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ইবিএম পদ্ধতির ব্যাপক ব্যবহার করা হবে। তার আগে জনগণকে বিষয়টি বুঝার জন্য ইবিএম মেলা ও মহড়ার ব্যবস্থা করব।

তিনি আরো বলেন, আগামী নভেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হবে। ডিসেম্বরের মধ্যে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। নির্বাচনে তিন পার্বত্য জেলার জন্য আলাদা আইন শৃঙ্খলার ব্যবস্থা করা হবে। এখানে অনেক দূর্গম এলাকায় হেলিকপ্টার দিয়ে ভোটের মালামাল ও ভোট গ্রহণ কর্মকর্তাদের পৌছাতে হয়। এক্ষেত্রে আমরা সেনাবহিনীর সহায়তা নিব। ইদানিংকালে তিন পার্বত্য জেলাতে নিজেদের মধ্যে হানাহানি বৃদ্ধি পাওয়ায় আমরা আলাদা পরিকল্পনা করছি। সেনাবাহিনী ও স্থানীয় প্রশাসনের সাথে কথা বলে সুষ্ঠ ভোট গ্রহণের ব্যবস্থা করব।

সাজাপ্রাপ্তরা নির্বাচন করতে পারবেন কিনা ? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ফৌজদারী আদালতে কেউ যদি ৫ বছরের কম সাজাপ্রাপ্ত হয় তার নির্বাচন করার সুযোগ আছে। সেক্ষেত্রে বিএনপি’র চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া নির্বাচন করতে পারবেন কিনা ? সাংবাদিকদের সম্পূরক এই প্রশ্নে ইসি সচিব বলেন, যেহেতু তিনি সাজাপ্রাপ্ত হয়েছেন, তার আপিল আবেদন মঞ্জুর হয় নাই বা এই বিষয়টা চলমান রয়েছে সেহেতু এখানে আইনীগত একটা বিষয় আছে।
জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ জান্নাত রুমি’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, বান্দরবান অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. আবুল কালাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো, কামরুজ্জামান, চট্টগ্রাম আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান, লামা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মো. ইসমাইল, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য মোস্তফা জামাল, লামা পৌরসভার মেয়র মো. জহিরুল ইসলাম। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. রেজাউল করিম।

আরো উপস্থিত ছিলেন, আলীকদম সেনা জোনের উপ-অধিনায়ক মেজর এ.এইচ.এম ফখরুল ইসলাম চৌধুরী, বান্দরবান জেলা পরিষদ সদস্য ফাতেমা পারুল সহ প্রমূখ।


Print pagePDF pageEmail page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

See In Your Language