শিরোনাম
প্রশ্ন ফাঁস, অগ্রণী ব্যাংকের বিকাল ধাপের নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল

প্রশ্ন ফাঁস, অগ্রণী ব্যাংকের বিকাল ধাপের নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল

অগ্রণী ব্যাংকের সকাল ধাপের প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে বিকাল ধাপের নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল করেছে কর্তৃপক্ষ।

শুক্রবার বিকাল ৩টা থেকে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবার কথা ছিল।

অগ্রণী ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার পদের নিয়োগ পরীক্ষার দায়িত্ব ছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাংকিং ও ইনস্যুরেন্স বিভাগের।

এ ব্যাপারে পরীক্ষার দায়িত্ব পাওয়া বিভাগের শিক্ষক ও ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম যুগান্তরকে বলেন, ‘কোনো একটি পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে প্রশ্নটি ফাঁস হতে পারে। আমরা যখনই এ অভিযোগ পেয়েছি তখনই বিকালের ভাগের পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত নেই।’

তিনি আরও বলেন, ‘নৈতিকতার দিক থেকে আমরা পরীক্ষাটি বাতিল করি। এ কারণে আর্থিকভাবে অনেক ক্ষতি হবে, তবে পরীক্ষার্থীদের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে ও উদ্যোমী তরুণদের মনোবল যাতে ভেঙে না পড়ে সেই দিকটিই সবোর্চ্চ গুরুত্ব দিয়ে পরীক্ষাটি বাতিল করা হয়।’

তবে ব্যাংকার্স সিলেকশান কমিটি বিভাগের উপ মহা-ব্যবস্থাপক আরিফ হোসেন খান যুগান্তরকে বলেন, ‘সকালের পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ পেয়েছি। গভর্নর স্যারের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা হয়েছে। যাচাই-বাছাই করে অভিযোগ প্রমাণিত হলে পরীক্ষা বাতিল হতে পারে। তবে বিকালের পরীক্ষার বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত আমার জানা নাই।’

এর আগে প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগের মধ্যেই রাষ্ট্রায়ত্ত অগ্রণী ব্যাংকে নিয়োগের সকালের ধাপের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। অভিযোগ রয়েছে পরীক্ষার আগেই বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত ব্যাংকটির সিনিয়র অফিসার পদে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এই পরীক্ষার প্রশ্নপত্রের সঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরে বেড়ানো প্রশ্নের অনেক মিল রয়েছে।

অগ্রণী ব্যাংকের শুক্রবারের নিয়োগ পরীক্ষার দুই ধাপে আড়াই লক্ষাধিক পরীক্ষার্থী অংশ নেয়ার কথা ছিল।

এর আগে রাষ্ট্রায়ত্ত জনতা ব্যাংকের একটি নিয়োগে পরীক্ষায়ও প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ উঠেছিল। গত ২১ এপ্রিল ওই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।


Print pagePDF pageEmail page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

See In Your Language