শিরোনাম

বাংলাদেশি অভিনেত্রী লরেনের লাশ উদ্ধার, দাবি আত্মহত্যার

এয়ারটেলের বিজ্ঞাপন ও ‘তোমার পিছু ছাড়ব না’ শিরোনামের গানের মডেল হয়ে আলোচনায় এসেছিলেন তরুণ অভিনেত্রী লরেন মেন্ডেস। কিন্তু তার পথচলা দীর্ঘ হলো না। তার আগেই চলে গেলেন।

রবিবার রাজধানীর বারিধারায় নিজ বাসা থেকে লরেন মেন্ডেসের লাশ উদ্ধার করা হয়।

তার পারিবারিক সূত্র জানায়, রবিবার সকাল আনুমানিক সাড়ে ৭টার দিকে বাসায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন এই অভিনেত্রী। তবে তার গলায় ফাঁস লাগানোর কারণ এখনো জানা যায়নি।

লরেনের মৃত্যুতে নাট্যনির্মাতা হাবীব শাকিল নিজের ফেসবুকে একটি শোকবার্তা দিয়েছেন।

তিনি লেখেন, ‘তোমার কিসের এতো তাড়া ছিলো? তোমার জীবনটাই বা কতো দূর গিয়েছিলো? এতো তাড়াতাড়ি জীবনের অর্থ জেনে গিয়েছিলে যে জীবন সম্পর্কে আগ্রহ হারিয়ে গেলো? তোমার বন্ধুরা কারা? তারাও কি তোমার মতনই জীবনের সবটুকু জেনে গিয়েছে? আচ্ছা খুব জানতে ইচ্ছে করছে কারা তোমার সাথে রাত-দিন জীবনের ছোট এই রাস্তায় হেটে ছিলো?’

‘তোমাকে এতো প্রশ্ন করছি কেনো? উত্তর তো আমরা সবাই জেনে ঘুমিয়ে আছি।জেগে জেগে ঘুমিয়ে থাকার অভ্যাসটা আমাদের সিস্টেমের মধ্যেই আছে আর এতো এতো প্রশ্নের সমাধানও আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থা থেকে শুরু করে রাষ্ট্রের সকল সিস্টেমের মধ্যেই লুকি চুরি খেলছে। তুমি ক্ষমা করে দিও এই অবুঝ সিস্টেম কে ভালো থেকো ওপারে।’

খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বী লরেন মেন্ডেসের ক্যারিয়ার শুরু মডেলিং দিয়ে। তবে পরিচিতিটা পান এয়ারটেলের বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে।

‘ইন্টারনেট শেষ হলেও, নো টেনশন’ এয়ারটেলের বিজ্ঞাপনে ব্যবহৃত এই সংলাপটি দিয়ে আলোচনায় আসেন তিনি।

এছাড়া বেশ কয়েকটি মিউজিক ভিডিওতেও দেখা গেছে তাকে। এরপর স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‌‘অমর প্রেম’-এ অভিনয় করেছেন।


Print pagePDF pageEmail page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

See In Your Language