Templates by BIGtheme NET
শিরোনাম

প্যারোলে নয়, আমরা খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি চাই

কারাবন্দি খালেদা জিয়াকে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্যারোলের পরিবর্তে নিঃশর্ত মুক্তি দেয়ার দাবি জানিয়েছে বিএনপি।

দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, খালেদা জিয়াকে প্যারোলে নয়, আমরা তার নিঃশর্ত মুক্তি চাই; তিনি যেন চিকিৎসার জন্য বিদেশে যেতে পারেন।

শুক্রবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল এ দাবি জানান।

এ সময় তিনি বলেন, কারারুদ্ধ দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার হঠাৎ অসুস্থতার সংবাদে আমরা অত্যন্ত উদ্বিগ্ন ও উৎকণ্ঠিত। আমরা তার স্বাস্থ্য নিয়ে শঙ্কায় আছি।

মির্জা ফখরুল বলেন, গতকাল খালেদা জিয়ার সঙ্গে আমার বিকাল ৩টায় সাক্ষাতের কথা ছিল। কিন্তু দুপুর দেড়টায় আমি যখন তার সঙ্গে দেখা করতে রওনা হয়েছি, তখন চেয়ারপারসনের একান্ত সচিব আমাকে জানালেন তিনি অসুস্থ। ঢাকার সিভিল সার্জন তাকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে গেছেন। তাই আমার সাক্ষাৎ স্থগিত করা হয়েছে।

মহাসচিব দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, খালেদা জিয়ার কী ধরনের অসুস্থতা, তিনি কেমন আছেন, তা আমরা জানতে পারিনি। সরকার বা কারাকর্তৃপক্ষ সে বিষয়ে আমাদের কিছুই জানায়নি।

মির্জা ফখরুল অভিযোগ করে বলেন, সুপরিকল্পিতভাবে দেশনেত্রীকে রাজনীতি থেকে দূরে সরিয়ে দেয়ার জন্যই এসব চক্রান্ত চলছে। এ সরকার অবৈধভাবে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই সুপরিকল্পিতভাবে একের পর এক মিথ্যা মামলা দিয়ে তাকে হয়রানি করছে এবং সর্বশেষ তাকে কারারুদ্ধ করেছে।

তাকে অন্যায়ভাবে একটি পরিত্যক্ত ভবনে আটকে রাখা হয়েছে। ন্যূনতম সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে তাকে। কারাগারে তাকে সুচিকিৎসা দেয়া হচ্ছে না।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, নজরুল ইসলাম খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী প্রমুখ।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় ঢাকার পঞ্চম বিশেষ জজ আদালত বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন।

রায়ের পর পরই তাকে পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। তখন থেকে সেখানে বন্দি আছেন বিএনপি নেত্রী।


Print pagePDF pageEmail page
Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*