শিরোনাম

পার্বত্য অঞ্চলের গ্রাম পুলিশের বেতন-ভাতা নিয়মিত পেতে প্রশাসনের প্রতি মানবিক আবেদন

সাইফুল ইসলাম:  বান্দরবান’সহ পার্বত্য অঞ্চলের গ্রাম পুলিশের নির্ধারি বেতন ভাতা সঠিক সময়ে প্রতি মাসের ১০ তারিখের মধ্যে নিয়মিত পেতে পার্বত্য মন্ত্রী সহ জেলা প্রশাসনের প্রতি মানবিক আবেদন করেছে বান্দরবান সদর উপজেলার এর ২নং কুহালং ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম পুলিশের লিডার কমান্ডার নুরুল আলম। তিনি প্রতিবেদককে জানান, আমরা বান্দরবানের প্রত্যন্ত অঞ্চল ২নং কুহালং ইউনিয়ন পরিষদে দীর্ঘ ১২ বছর বা এক যোগ এর বেশী সময় ধরে দফাদার (বর্তমানে) যাকে বলা হয় গ্রাম পুলিশের কমান্ডার হিসেবে খেয়ে না খেয়ে সততা ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছি, ইউনিয়ন পরিষদ কর্তৃক প্রতি মাসে বেতন ও বিভিন্ন উৎসবে উৎসব ভাতা দেওয়ার কথা থাকলেও আমরা মাসের পর মাস বছরের পর বছর বেতন ভাতা পায় না, আমরা নিয়মিত বেতন ভাতা না পাওয়ার কারণে পরিবার-পরিজনদের নিয়ে খেয়ে না খেয়ে অনেক কষ্টে জীবন-যাপন করতে হচ্ছে। এই ব্যাপারে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সচিব জানায়, ইউনিয়ন পরিষদের বার্ষিক উন্নয়ন আয় ও রাজস্ব আয় কম,তাই গ্রাম পুলিশদের বেতন ভাতা প্রতি মাসে দেওয়া বা পরিশোধ করা সম্ভব হয় না, যার কারণে বেতন ভাতা বকেয়া রয়ে যাচ্ছে। ২নং কুহাং ইউপি গ্রাম পুলিশ সাইন মাং মারমা, গ্রাম পুলিশ বদিউল আলম, গ্রাম পুলিশ চাইসা প্রæ খেয়াং, গ্রাম পুলিশ থোয়াই ম্রাউ মারমা, গ্রাম পুলিশ মেদোক মারমা, গ্রাম পুলিশ মো: ফোরকান, গ্রাম পুলিশ মং ঙৈচিং মারমা,ও গ্রাম পুলিশ উচপ্রæ মারমা প্রতিবেদক কে আরো বলেন, আমাদের বেতন ও উৎস ভাতা নিয়মিত পেতে বা এই সমস্যার সমাধানে আমাদের স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়, পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি মহোদয়, পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, জেলা প্রশাসক ও প্রশাসনসহ সংশ্রষ্টি কর্তৃপক্ষ আমাদের প্রতি একটু সু-দৃষ্টি ও মানবিক দৃষ্টি প্রদান করিলে আমরা অনেকটা সস্থির নিশ্বাস পেতে পারি, আমাদের প্রতি একটু দয়াবান হউন, সকলের প্রতি মানবিক আমাদের এই আবেদন টুকু রইলো, আমাদের ভুল ত্রুটি গোলো ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন, এবং আমাদের সমস্যা সমাধানে একটু সু-দৃষ্টি দিবেন এই প্রত্যাশার অপেক্ষায় আমরা পার্বত্য অঞ্চলের গ্রাম পুলিশবৃন্দ।


Print pagePDF pageEmail page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

See In Your Language